7 Misconceptions About Raising Interfaith Toddlers. But beyond holiday activities, will it be smart to boost youngsters in two religions?

7 Misconceptions About Raising Interfaith Toddlers. But beyond holiday activities, will it be smart to boost youngsters in two religions?

7 Misconceptions About Raising Interfaith Toddlers. But beyond holiday activities, will it be smart to boost youngsters in two religions?

Now of the year, a lot of interfaith family members are preparing to feast on latkes, light Hanukkah candle lights on Thanksgiving table immediately after which move on to producing Christmas snacks.

More rabbis, ministers and priests urge interfaith family members to select one religion, as a result of worries that honoring both reasons frustration, conflict or indifference. Nonetheless, we made a decision to boost our youngsters in an interfaith people, finding out both religions from Jewish and Christian instructors functioning side-by-side, so need countless additional family members outlined in my own publication, becoming Both: investing in Two Religions in a single Interfaith household. To join this interfaith groups motion, you will do want a thick epidermis, techniques in cross-cultural wedding and careful information at prepared for experts. Listed below are some top myths about raising kids with both religions, and answers on the problems you are likely to listen from family, buddies and clergy:

Misconception number 1: The Children Shall Be Baffled

Religions are, by their most nature, perplexing. Most likely, they develop to address concerns without responses:

the great secrets of life and death. But they are little ones lifted with two religions fundamentally more overwhelmed? “young ones can handle ambivalence, can handle difficulty,” says social worker and therapist Susan Needles, whom works together interfaith family in New York City. “It’s merely grownups who desire they tangled up in a neat package. Youngsters are planning to split open the package in any event.”

Part of the goal of interfaith religious degree will be assist girls and boys manage this fact, also to provide them with a deep comprehension of two entwined cultures. “It really is a complicated globe, and I don’t think we create our kids any favors whatsoever by acting it is less complicated than it is,” claims Reverend Rick Spalding, who https://datingranking.net/feabie-review/ was simply 1st Christian educator during the Interfaith society (IFC), nyc’s pioneering interfaith studies regimen for interfaith youngsters. “young ones are designed for a multiplicity of identities,” believes Rabbi Nehama Benmosche, exactly who also coached at IFC. Inside my study of adolescents and teenagers raised in interfaith family members forums, about 90 % mentioned they did are not baffled by finding out both Judaism and Christianity. One young woman just who was raised with both religions had written, “I really don’t think learning most is actually ever before perplexing. Or in other words, i do believe that questioning as well as perhaps becoming confused (or realizing that you will find possibilities) is never an awful thing.”

Myth # 2: the children should be exhausted by Choosing Between Parents

Mothers who have chosen to boost kids with both religions should clarify that an option has already been produced — the decision to enjoy both. Even although you do choose one faith for an interfaith child, they could be interested in additional faith, for theological or cultural reasons, or because they recognize using the religious “out-parent.” In conclusion, mothers can decide a label because of their offspring, but all offspring possess straight to mature to make their very own decisions about religious practice. And they’re going to.

Thus far, a great deal of adults we interviewed have decided to help keep “interfaith” or “Jewish and Christian” identities: they get a hold of this character provides a lot more pros than downsides. But I additionally encountered lots of interfaith teens and adults that has preferred both Judaism, or Christianity, after expanding with both religions. “i did not find it as selecting between my personal mothers,” states Matthew Kolaczkowski, a new people lifted with both Judaism and Catholicism, which fundamentally chose Judaism. “I watched it a lifelong decision I would personally need live with, and I also realized that my parents would help me personally in either case.”

Misconception #3: the kid cannot feel at ease in a Synagogue or Church Interfaith girls and boys increased in religions typically undertake the character of interfaith interpreters, or bridge-builders. At a Bat Mitzvah, they could explain Jewish prayers and rituals with their Christian company. At a Christian verification, they’re able to clarify prayers and traditions to their Jewish pals.

In the end, whether an interfaith youngsters feels safe in a residence of praise comes from no less than three factors

— understanding of the traditions, convenience because of the root theology and feeling pleasant. The melodies, prayers and style may vary also within same Christian denomination or Jewish motion, thus locating a comfy religious house is not necessarily smooth, even for folks lifted in one single religion. But after getting raised with both religions, a lot of the teenagers and young adults I interviewed stated they thought comfortable in a synagogue, along with a church.

Myth #4: Both Religions Are Contradictory

If either interfaith parent thinks in a religious book as revealed reality, whether Jewish, Christian, Muslim or any other faith, this could write stress in an interfaith family. Undoubtedly, a “mixed matrimony” in which one father or mother try fundamentalist together with some other is not, presents difficulties, even in the event both parents are exactly the same religion.

এই পোস্টটি সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আমাদের ডোনেট করুন

শিশুদের উন্নয়নে অংশিদার হোন
আমাদের সহায়তা করুন

বিকাশ নাম্বার- ০১৭৩৬২১৩৮২৮

মাসব্যাপি অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতা-২০২০ইং

মাসব্যাপি অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতা-২০২০ইং পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

অনলাইনে ভোটার রেজিষ্টেশন

অনলাইনে ভোটার রেজিষ্টেশন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

অনলাইনে সদস্য ফরম

অনলাইনে সদস্য ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

সকল ফরম সমূহ

শিশু সংসদ সদস্য পদে আবেদন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন

উপ শিশু সাংসদ সদস্য পদে আবেদন পত্র পেতে এখানে ক্লিক করুন

উপদেষ্টা পদে সম্মতি পত্র পেতে এখানে ক্লিক করুন

ভোটার রেজিঃ ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন

চেয়ারম্যানের পরিচয়

মিস. ফাতিমা মুন্নি। প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি। তিনি দেশের অন্যতম একজন শিশু সংগঠক, শিশু গবেষক এবং সম্পাদক। তিনি জনপ্রিয় জাতীয় শিশু কিশোর ম্যাগাজিন কিশোর গোয়েন্দা’র সম্পাদক ও প্রকাশক। এছাড়াও তিনি বিএনসিপির সকল সহযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতিষ্ঠাতা।১৯৯৬ সালে ৩০ শে মে ঐতিহাসিক কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বর্তমানে স্বপরিবারে ঢাকার কমলাপুরে বসবাস করেন। তিনি ঐহিয্যবাহী কুমিল্লা ভিক্টরিয়া সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিষয়ে অর্নাসে প্রথম শ্রেণীতে উৎতিন্ন হয়ে একই কলেজ থেকে মাষ্টার’স শেষ করে বর্তমানে উচ্চতর ডিগ্রী পিএইসডি অর্জনের জন্য দেশের বাহিরে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
তিনি ছোট বেলা থেকেই শিশুদের ব্যাপারে খুবই কৌতুহলি এবং আবেগি ছিলেন। তিনি সব সময় শিশুদের উন্নয়ন এবং ভবিষৎতে যেন আজকের শিশুরাই আগামীর পৃথিবীকে সুন্দর ও যুগ উপযুগী সিদ্ধান্ত নিয়ে সঠিক ভাবে পরিচালনা করতে পারে এই নিয়ে চিন্তা করতেন। “আজকের শিশুরাই আগামীর ভবিষৎত” মূলত এই ব্যাক্যটি থেকেই বিএনসিপির জন্ম। মিস. ফাতিমা মুন্নির মতে যদি আজকের শিশুরাই আগামীর ভবিষৎত হয়ে থাকে তবে অবশ্যই তাদের আগামীর জন্য উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে হবে এবং অবশ্যই সেই গড়ে উঠার মাধ্যমটি হতে হবে সম্পূর্ন ভিন্ন, কৌতুহলি, যুগ উপযুগী এবং সর্বপরি সর্বজনিন গ্রহণযোগ্য। কি হতে পারে সেই মাধ্যম, এমন চিন্তা, গবেষণা এবং অক্লান্ত প্ররিশ্রমের ফল ই হল আজকের বিএনসিপি। বিএনসিপি শুধুমাত্র একটি সংগঠন নয়, এটি রাষ্ট্র ও সমাজের শুভ, কল্যাণ ও শ্রেয়বোধ উন্নয়ন মূলক প্রতিষ্ঠান। নতুন প্রজন্ম নতুন পৃথিবী চায় তারা এ দেশের ভবিষ্যত নির্মাতা। তাদের রুচি, মেধা ও মূল্যবোধের ওপরই নির্ভর করছে দেশের ভবিষ্যত কতটা উজ্জলতর হবে। নিজেকে উন্নত মানুষ হিসাবে গড়ে তুলতে পারাটাই প্রত্যেকে এক বড় কর্তব্য। তাহলেই তারা তাদের মেধা, শ্রম, শিক্ষা ও রুচি দিয়ে দেশ, মানুষ ও বিশ্বমানবতার কল্যাণে নিজেদের নিয়োজিত করতে পারবে এবং গণতন্ত্র চর্চ্যা, সাহিত্য, শিল্প, সংস্কৃতি, খেলাধুলার মধ্য দিয়েই শিশুরা হয়ে উঠবে আর্দশ নাগরিক হিসাবে। বিএনসিপি নতুন প্রজন্মের মধ্যে এই মানবিক মূল্যবোধ সঞ্চার করতে চায়। এটি মানবিক মূল্যবোধে উজ্জ্বিবিত মানুষের সম্মিলিত হওয়ার, নিজেকে গড়ে তোলার এবং মানবতার কল্যাণে কাজ করার একটি মঞ্চ। “আমরা জয় করব নিজেকে, জয় করব এই দেশকে এই দেশের মানুষকে এই আমাদের অঙ্গিকার” এই শ্লোগান নিয়ে প্রতিষ্ঠিত বিএনসিপি। সারা দেশেই রয়েছে এর বিস্তৃতি। এটি একটি শিশু অধিকার রক্ষা এবং শিশু-কিশোদের নেতৃত্ব বিকাশ ও মানসিক উন্নয়নের লক্ষে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠার অন্যতম শ্রেষ্ট মাধ্যম।

“শিশুদের উন্নয়নে অংশিদার হোন
আমাদের সহায়তা করুন
বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি
আসুন সবাই শিশুদের উন্নয়ন করি কপি”

ধন্যবাদান্তে
ফাতিমা মুন্নি
প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান
বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি