China’s development companies sow chaos around the globe. Development agencies had from the People’s Republic of China include doing harm to the environment and intimidating the economies and sovereignty of places around the world

China’s development companies sow chaos around the globe. Development agencies had from the People’s Republic of China include doing harm to the environment and intimidating the economies and sovereignty of places around the world

China’s development companies sow chaos around the globe. Development agencies had from the People’s Republic of China include doing harm to the environment and intimidating the economies and sovereignty of places around the world

Asia Communications Construction Company (CCCC) was progressing the PRC’s army growth to the South China Sea through extensive dredging, construction and militarization of man-made countries and debated outposts. Further, CCCC drives Beijing’s “One buckle, One street” effort, which promises brand new structure to developing places but delivers shoddy construction, labor abuses, unsustainable financial obligation and ecological damage alternatively.

“CCCC and its subsidiaries need engaged in corruption, predatory funding, environmental break down alongside violations around the globe,” Secretary of county Michael R. Pompeo mentioned August 26. “The PRC must not be permitted to make use of CCCC as well as other state-owned corporations as artillery to impose an expansionist agenda.”

CCCC subsidiaries sanctioned for armed forces outposts

CCCC brings structure megaprojects through the 34 subsidiaries. Based on its websites, the firm may be the premier port building and style organization in Asia, plus the largest dredging providers. Additionally, it is a number one providers in railway construction, including roadway and connection build and development.

Five CCCC subsidiaries are probably the two dozen PRC state-owned companies that the U.S. section of Commerce sanctioned August 26 for constructing army outposts during the Southern China ocean that trample sovereignty and spoil the surroundings.

The usa, Asia’s neighbors, additionally the intercontinental people have rebuked the CCP’s sovereignty states the Southern China Sea and also have condemned this building of synthetic countries for all the Chinese government

The office of Commerce added the CCCC subsidiaries to its Entity number, which precludes companies from purchasing American-made equipment without U.S. national permission.

The U.S. states the PRC’s maritime states during the South Asia Sea infringe from the rights of more nations. The Department of county will begin stopping executives for the state-owned enterprises responsible for PRC militarization with the region from going into the U.S.

CCCC satisfies damaging ‘One gear, One street’ approach

The devastation wrought by CCCC expands beyond the Southern Asia ocean. As top companies for example buckle, One roadway, CCCC associates posses experienced accusations of everything from bribery and low-quality building to individual exploitation. Supported by the Chinese Communist celebration, CCCC on a regular basis underbids all competition and it is not used to international criteria of visibility or responsibility because of the PRC.

Worldwide Bank during 2009 banned the CCCC from its highway and link jobs for eight many years after discovering fraudulence for the putting in a bid process for a street project when you look at the Philippines.

Protesters in Philippines, seen in April 2019, posses urged their national to reveal all agreements with China. (© Bullit Marquez/AP Pictures)

It’s a familiar facts. Bangladesh in 2018 banned the Asia Harbour technology Company, a CCCC part, for attempting to bribe a national official to https://fasterloansllc.com/installment-loans-ak/ obtain good conditions on an important street project.

The same seasons, the Malaysian federal government halted a CCCC railway project amid investigations of corruption and overbilling, per Bloomberg.

Work associates in Kenya bring implicated another CCCC subsidiary, the China highway and link organization, of spending Kenyan locomotive providers significantly less than one-third of what their Chinese equivalents make. The business is run a railway on a 10-year deal.

A Kenyan guy works on a railway venture in Nairobi in 2018. The Asia marketing and sales communications development Company happens to be implicated of underpaying neighborhood railroad workers in Kenya. (© Yasuyoshi Chiba/AFP/Getty Graphics)

In Ecuador, a CCCC affiliate was contracted to build a middle for higher level technologies education in 2014, but local development shops stated that after several years of construction, more than 80 percent on the university places is unusable due to structural problems.

The PRC’s state-owned providers also have invested massive amounts in slots global to achieve use of important waterways, per 2017 document by C4ADS, a nonprofit situated in Washington that focuses on safety problems.

A CCCC subsidiary created the port of Hambantota in Sri Lanka. After Sri Lankan government couldn’t repay debts due to Beijing, government entities transferred command over the port to a PRC team on a 99-year rental.

In present interview, Pompeo states nations were getting out of bed into probability of using the services of the Chinese Communist Party and its state-owned providers.

Many One Belt, One path work looks effective in the beginning, Pompeo said during a July 9 reports conference. But nations shortly discover that “the willpower the Chinese Communist celebration made to provide, whether that is on a road or a bridge or on an infrastructure project like a dam, it turns out that they were usually marketed a true costs of products.”

এই পোস্টটি সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আমাদের ডোনেট করুন

শিশুদের উন্নয়নে অংশিদার হোন
আমাদের সহায়তা করুন

বিকাশ নাম্বার- ০১৭৩৬২১৩৮২৮

মাসব্যাপি অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতা-২০২০ইং

মাসব্যাপি অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতা-২০২০ইং পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

অনলাইনে ভোটার রেজিষ্টেশন

অনলাইনে ভোটার রেজিষ্টেশন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

অনলাইনে সদস্য ফরম

অনলাইনে সদস্য ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

সকল ফরম সমূহ

শিশু সংসদ সদস্য পদে আবেদন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন

উপ শিশু সাংসদ সদস্য পদে আবেদন পত্র পেতে এখানে ক্লিক করুন

উপদেষ্টা পদে সম্মতি পত্র পেতে এখানে ক্লিক করুন

ভোটার রেজিঃ ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন

চেয়ারম্যানের পরিচয়

মিস. ফাতিমা মুন্নি। প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি। তিনি দেশের অন্যতম একজন শিশু সংগঠক, শিশু গবেষক এবং সম্পাদক। তিনি জনপ্রিয় জাতীয় শিশু কিশোর ম্যাগাজিন কিশোর গোয়েন্দা’র সম্পাদক ও প্রকাশক। এছাড়াও তিনি বিএনসিপির সকল সহযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতিষ্ঠাতা।১৯৯৬ সালে ৩০ শে মে ঐতিহাসিক কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বর্তমানে স্বপরিবারে ঢাকার কমলাপুরে বসবাস করেন। তিনি ঐহিয্যবাহী কুমিল্লা ভিক্টরিয়া সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিষয়ে অর্নাসে প্রথম শ্রেণীতে উৎতিন্ন হয়ে একই কলেজ থেকে মাষ্টার’স শেষ করে বর্তমানে উচ্চতর ডিগ্রী পিএইসডি অর্জনের জন্য দেশের বাহিরে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
তিনি ছোট বেলা থেকেই শিশুদের ব্যাপারে খুবই কৌতুহলি এবং আবেগি ছিলেন। তিনি সব সময় শিশুদের উন্নয়ন এবং ভবিষৎতে যেন আজকের শিশুরাই আগামীর পৃথিবীকে সুন্দর ও যুগ উপযুগী সিদ্ধান্ত নিয়ে সঠিক ভাবে পরিচালনা করতে পারে এই নিয়ে চিন্তা করতেন। “আজকের শিশুরাই আগামীর ভবিষৎত” মূলত এই ব্যাক্যটি থেকেই বিএনসিপির জন্ম। মিস. ফাতিমা মুন্নির মতে যদি আজকের শিশুরাই আগামীর ভবিষৎত হয়ে থাকে তবে অবশ্যই তাদের আগামীর জন্য উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে হবে এবং অবশ্যই সেই গড়ে উঠার মাধ্যমটি হতে হবে সম্পূর্ন ভিন্ন, কৌতুহলি, যুগ উপযুগী এবং সর্বপরি সর্বজনিন গ্রহণযোগ্য। কি হতে পারে সেই মাধ্যম, এমন চিন্তা, গবেষণা এবং অক্লান্ত প্ররিশ্রমের ফল ই হল আজকের বিএনসিপি। বিএনসিপি শুধুমাত্র একটি সংগঠন নয়, এটি রাষ্ট্র ও সমাজের শুভ, কল্যাণ ও শ্রেয়বোধ উন্নয়ন মূলক প্রতিষ্ঠান। নতুন প্রজন্ম নতুন পৃথিবী চায় তারা এ দেশের ভবিষ্যত নির্মাতা। তাদের রুচি, মেধা ও মূল্যবোধের ওপরই নির্ভর করছে দেশের ভবিষ্যত কতটা উজ্জলতর হবে। নিজেকে উন্নত মানুষ হিসাবে গড়ে তুলতে পারাটাই প্রত্যেকে এক বড় কর্তব্য। তাহলেই তারা তাদের মেধা, শ্রম, শিক্ষা ও রুচি দিয়ে দেশ, মানুষ ও বিশ্বমানবতার কল্যাণে নিজেদের নিয়োজিত করতে পারবে এবং গণতন্ত্র চর্চ্যা, সাহিত্য, শিল্প, সংস্কৃতি, খেলাধুলার মধ্য দিয়েই শিশুরা হয়ে উঠবে আর্দশ নাগরিক হিসাবে। বিএনসিপি নতুন প্রজন্মের মধ্যে এই মানবিক মূল্যবোধ সঞ্চার করতে চায়। এটি মানবিক মূল্যবোধে উজ্জ্বিবিত মানুষের সম্মিলিত হওয়ার, নিজেকে গড়ে তোলার এবং মানবতার কল্যাণে কাজ করার একটি মঞ্চ। “আমরা জয় করব নিজেকে, জয় করব এই দেশকে এই দেশের মানুষকে এই আমাদের অঙ্গিকার” এই শ্লোগান নিয়ে প্রতিষ্ঠিত বিএনসিপি। সারা দেশেই রয়েছে এর বিস্তৃতি। এটি একটি শিশু অধিকার রক্ষা এবং শিশু-কিশোদের নেতৃত্ব বিকাশ ও মানসিক উন্নয়নের লক্ষে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠার অন্যতম শ্রেষ্ট মাধ্যম।

“শিশুদের উন্নয়নে অংশিদার হোন
আমাদের সহায়তা করুন
বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি
আসুন সবাই শিশুদের উন্নয়ন করি কপি”

ধন্যবাদান্তে
ফাতিমা মুন্নি
প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান
বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি