This can ben’t a satisfying chore, but an important one when we expect you’ll regulate really

This can ben’t a satisfying chore, but an important one when we expect you’ll regulate really

This can ben’t a satisfying chore, but an important one when we expect you’ll regulate really

Last week, our consumers asked me, “This human being relations information is perhaps all really and great, but how perform we consult with some body whenever they messed up?”

Assuming it’s maybe not an important offense where control or termination is on the table

1. Look at your expectations. About half the time that someone possess underperformed, I’ve determined that I played about a mentionable part in causing they. In the end, if I’m not clear back at my expectations ahead of time, how do I anticipate them to getting found?

Whatever sum you have generated doesn’t essential reason poor overall performance, it should place in context the manner in which you starting the discussion and what steps you adopt after it. Certainly, anyone you control requires requested additional clarification…but any time you provided few or no expectations, you ought to realize that as well and, if for example the sum was actually big, admit to it.

2. Get to the point. Mainstream wisdom claims that hard suggestions should focus on claiming anything good about a person’s efficiency, after that supply the bad opinions, followed closely by additional praise by the end. It’s popular, it’s actually obtained a name: sandwich suggestions.

It stinks. We all know this product and anticipates they (so men listen for all the more footwear to decrease once you begin in with unexpected compliments). In addition tricky, someone often best hear the positive and downplay the feedback: “Oh wow, my personal supervisor merely provided me with good comments on a number of things and simply had one area of improvement.”

Worst of all, it is evident to just about anyone your positive comments was just directed at work up to bad news. It’s hit me personally as simple and manipulative whenever it’s started done to me. If you don’t have no commitment at all the making use of the individual you should render suggestions to, get to the point beforehand.

3. determine the issue. I’ve viewed executives therefore wanting to be achieved with difficult discussions that they glaze across the specifics of just what actually happened. They mention their own dissatisfaction following feel they’re finished.

it is inadequate to tell some body you are disappointed or that her overall performance is not up to par. If you’ve made a decision to give feedback, the responsibility is first for you to show exactly what didn’t sort out a certain example, clear data, or a comprehensive reason of what objectives were not came across.

Troubles to achieve that well is worse than claiming little.

“The ultimate opposing forces of telecommunications is the fantasy of it.”

Achieving this really does not mean another party will greeting the conversation. But, it will obviously establish what’s wrong and set the period a variety of actions next time.

4. Clarify potential behavior. It’s useless to revisit the last in the event it does not create a clear behavior money for hard times. After you’ve described the challenge, the discussion should move to protection, opportunity, or instructions discovered, according to the scenario.

Remember each party are clear on what should occur going forward. If both of you contributed one way or another, you both need motion things. If visitors aren’t taking walks aside with records and measures, you’re not anticipating.

5. Affirm the person. Within his publication Organizational heritage and management, Edgar Schein (2004) notoriously reported that Tom Watson, past CEO of IBM, summoned a member of staff to his workplace to deal with a bad decision from the employee costing a number of million cash. Following end of the conversation, hoping to feel discharged, the guy read instead from Watson, “Not anyway, son; there is merely spent a few million dollars educating your” (p. 255).

https://datingranking.net/african-dating/

When problems are made, we should instead manage them. Yet, a person’s mistaken action should always be divided from the people on their own. Should your organization needs to constantly take part and build an invaluable staff, affirm them as people without excusing the action.

[reminder]just what maybe you have found to be useful when giving individuals critical suggestions?[/reminder]

এই পোস্টটি সোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আমাদের ডোনেট করুন

শিশুদের উন্নয়নে অংশিদার হোন
আমাদের সহায়তা করুন

বিকাশ নাম্বার- ০১৭৩৬২১৩৮২৮

মাসব্যাপি অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতা-২০২০ইং

মাসব্যাপি অনলাইন কুইজ প্রতিযোগীতা-২০২০ইং পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

অনলাইনে ভোটার রেজিষ্টেশন

অনলাইনে ভোটার রেজিষ্টেশন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

অনলাইনে সদস্য ফরম

অনলাইনে সদস্য ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

সকল ফরম সমূহ

শিশু সংসদ সদস্য পদে আবেদন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন ।

নির্বাচনের মনোনয়ন ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন

উপ শিশু সাংসদ সদস্য পদে আবেদন পত্র পেতে এখানে ক্লিক করুন

উপদেষ্টা পদে সম্মতি পত্র পেতে এখানে ক্লিক করুন

ভোটার রেজিঃ ফরম পেতে এখানে ক্লিক করুন

চেয়ারম্যানের পরিচয়

মিস. ফাতিমা মুন্নি। প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি। তিনি দেশের অন্যতম একজন শিশু সংগঠক, শিশু গবেষক এবং সম্পাদক। তিনি জনপ্রিয় জাতীয় শিশু কিশোর ম্যাগাজিন কিশোর গোয়েন্দা’র সম্পাদক ও প্রকাশক। এছাড়াও তিনি বিএনসিপির সকল সহযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহের প্রতিষ্ঠাতা।১৯৯৬ সালে ৩০ শে মে ঐতিহাসিক কুমিল্লা জেলার বুড়িচং উপজেলার এক মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বর্তমানে স্বপরিবারে ঢাকার কমলাপুরে বসবাস করেন। তিনি ঐহিয্যবাহী কুমিল্লা ভিক্টরিয়া সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিষয়ে অর্নাসে প্রথম শ্রেণীতে উৎতিন্ন হয়ে একই কলেজ থেকে মাষ্টার’স শেষ করে বর্তমানে উচ্চতর ডিগ্রী পিএইসডি অর্জনের জন্য দেশের বাহিরে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।
তিনি ছোট বেলা থেকেই শিশুদের ব্যাপারে খুবই কৌতুহলি এবং আবেগি ছিলেন। তিনি সব সময় শিশুদের উন্নয়ন এবং ভবিষৎতে যেন আজকের শিশুরাই আগামীর পৃথিবীকে সুন্দর ও যুগ উপযুগী সিদ্ধান্ত নিয়ে সঠিক ভাবে পরিচালনা করতে পারে এই নিয়ে চিন্তা করতেন। “আজকের শিশুরাই আগামীর ভবিষৎত” মূলত এই ব্যাক্যটি থেকেই বিএনসিপির জন্ম। মিস. ফাতিমা মুন্নির মতে যদি আজকের শিশুরাই আগামীর ভবিষৎত হয়ে থাকে তবে অবশ্যই তাদের আগামীর জন্য উপযুক্ত করে গড়ে তুলতে হবে এবং অবশ্যই সেই গড়ে উঠার মাধ্যমটি হতে হবে সম্পূর্ন ভিন্ন, কৌতুহলি, যুগ উপযুগী এবং সর্বপরি সর্বজনিন গ্রহণযোগ্য। কি হতে পারে সেই মাধ্যম, এমন চিন্তা, গবেষণা এবং অক্লান্ত প্ররিশ্রমের ফল ই হল আজকের বিএনসিপি। বিএনসিপি শুধুমাত্র একটি সংগঠন নয়, এটি রাষ্ট্র ও সমাজের শুভ, কল্যাণ ও শ্রেয়বোধ উন্নয়ন মূলক প্রতিষ্ঠান। নতুন প্রজন্ম নতুন পৃথিবী চায় তারা এ দেশের ভবিষ্যত নির্মাতা। তাদের রুচি, মেধা ও মূল্যবোধের ওপরই নির্ভর করছে দেশের ভবিষ্যত কতটা উজ্জলতর হবে। নিজেকে উন্নত মানুষ হিসাবে গড়ে তুলতে পারাটাই প্রত্যেকে এক বড় কর্তব্য। তাহলেই তারা তাদের মেধা, শ্রম, শিক্ষা ও রুচি দিয়ে দেশ, মানুষ ও বিশ্বমানবতার কল্যাণে নিজেদের নিয়োজিত করতে পারবে এবং গণতন্ত্র চর্চ্যা, সাহিত্য, শিল্প, সংস্কৃতি, খেলাধুলার মধ্য দিয়েই শিশুরা হয়ে উঠবে আর্দশ নাগরিক হিসাবে। বিএনসিপি নতুন প্রজন্মের মধ্যে এই মানবিক মূল্যবোধ সঞ্চার করতে চায়। এটি মানবিক মূল্যবোধে উজ্জ্বিবিত মানুষের সম্মিলিত হওয়ার, নিজেকে গড়ে তোলার এবং মানবতার কল্যাণে কাজ করার একটি মঞ্চ। “আমরা জয় করব নিজেকে, জয় করব এই দেশকে এই দেশের মানুষকে এই আমাদের অঙ্গিকার” এই শ্লোগান নিয়ে প্রতিষ্ঠিত বিএনসিপি। সারা দেশেই রয়েছে এর বিস্তৃতি। এটি একটি শিশু অধিকার রক্ষা এবং শিশু-কিশোদের নেতৃত্ব বিকাশ ও মানসিক উন্নয়নের লক্ষে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠার অন্যতম শ্রেষ্ট মাধ্যম।

“শিশুদের উন্নয়নে অংশিদার হোন
আমাদের সহায়তা করুন
বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি
আসুন সবাই শিশুদের উন্নয়ন করি কপি”

ধন্যবাদান্তে
ফাতিমা মুন্নি
প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান
বাংলাদেশ জাতীয় শিশু সংসদ বিএনসিপি